,

দ্বিতীয়বার সংলাপের জন্য প্রধানমন্ত্রীকে ড. কামালের চিঠি

‘আলোচনা সম্পূর্ণ করার লক্ষ্যে’ দ্বিতীয়বার সংলাপে বসতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে চিঠি দিয়েছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম নেতা ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন।

রোববার দুপুর ১২টার দিকে কামাল হোসেনের স্বাক্ষরিত ওই চিঠি ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে পৌঁছে দেন গণফোরামের প্রেসিডিয়াম সদস্য জগলুল হায়দার আফ্রিক। এ সময় গণফোরামের দুই নেতা মোশতাক আহমেদ ও আওম শফিকউল্লাহও উপস্থিত ছিলেন।

আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের অফিস সহকারী আলাউদ্দিন ও বিএম মাসুদুল হাসান ওই চিঠিটি গ্রহণ করেন।

প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে চিঠিতে ড. কামাল হোসেন বলেন, ‘দীর্ঘ সময় পর্যন্ত আলোচনার পরও আমাদের আলোচনাটি অসম্পূর্ণ থেকে যায়। সেই দিন আপনি বলেছিলেন, আমাদের আলোচনা অব্যাহত থাকবে। তারই পরিপ্রেক্ষিতে অসম্পূর্ণ আলোচনা সম্পূর্ণ করার লক্ষ্যে অতি জরুরি ভিত্তিতে আমরা জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের পক্ষে আবারো সংলাপে বসতে আগ্রহী।’

তবে এবারের আলোচনার বিষয়বস্তু ‘সীমিত পরিসরে’ রাখার পক্ষে মত দিয়ে চিঠিতে বলা হয়, ‘এই ক্ষেত্রে দফাগুলোর সাংবিধানিক এবং আইনগত দিক বিশ্লেষণের জন্য উভয় পক্ষের বিশেষজ্ঞসহ সীমিত পরিসরে আলোচনা আবশ্যক।’

এর আগে গত ১ নভেম্বর ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে ঐক্যফ্রন্টের ২০ সদস্যের প্রতিনিধি দল আলোচনায় অংশ নেয়। সংলাপ শেষে কামাল হোসেন বলেন, আলোচনায় কোনো সমাধান তারা পাননি। অন্যদিকে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, আলোচনায় তারা সন্তুষ্ট নন।

এরই মধ্যে সংলাপ শেষ হওয়ার আগে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা না করার আহ্বান জানিয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনার বরাবরে ঐক্যফ্রন্টের চিঠি দেওয়ার বিষয়টিও প্রধানমন্ত্রীকে জানানো হয়েছে কামালের চিঠিতে।

মতামত