,

ব্রেকিং

সাংবাদিকতায় ‘বিবিএফ-ইয়ূথ ইনোভেশন এ্যাওয়ার্ড-২০১৮’ পেলেন আবিদ আজম

নাগরিক নিউজ: ‘ব্রডকাষ্ট জার্নালিষ্ট’ হিসেবে–সম্প্রচার সাংবাদিকতায় বিশেষ অবদান রাখার স্বীকৃতি স্বরুপ জন্য ‘বিবিএফ-ইয়ূথ ইনোভেশন এ্যাওয়ার্ড-২০১৮’ তে ভূষিত হলেন, তরুণ সাংবাদিক ও লেখক আবিদ আজম।

২৬ সেপ্টেম্বর, বুধবার দুপুরে রাজধানীতে বেটার বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন আয়োজিত ‘এসডিজি বাস্তবায়নে তরুণদের ভূমিকা শীর্ষক’ এক অনুষ্ঠানে এ সম্মাননা তুলে দেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত নরওয়ে রাষ্ট্রদূত এইচ. ই. মিস সিডসেল ব্লেকেন, আরব আমিরাতের রাষ্ট্রদূত সাঈদ মোহাম্মদ আলী মেহেরী, অষ্ট্রেলিয়ান ডেপুটি হাই কমিশনার পেইনি মরটোন, আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক ও বিবিএফ চেয়ারম্যান মাসুদ এ খান সহ আরো অনেকে।

আবিদ আজম ছাড়াও এ পুরস্কার পেয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ-আইসিটি ক্ষেত্রে অবদান রাখায় প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক, প্রিন্ট মিডিয়ার জন্য দ্য ডেইলি ষ্টারের এলিটা করীম,সঙ্গীতে সঙ্গীতশিল্পী সোমনুর মনির কোনাল,সংবাদ উপস্থাপক শামীম খান শামা, ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের চেয়ারম্যান মিসেস রুকমীলা জামানসহ মোট এগারো জন তারুণ্যের প্রতিনিধি।

স্ব-স্ব ক্ষেত্রে জাতীয় উন্নতি ও অগ্রগতিতে তাঁদের বিশেষ অবদান রাখার স্বীকৃতি স্বরুপ এ পুরস্কার প্রদান করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন আয়োজকগণ। এদিকে, ‘বিবিএফ-ইয়োথ ইনোভেশন এ্যাওয়ার্ড’ প্রাপ্তির ব্যাপারে দেশের প্রথম প্রাইভেট রেডিও ষ্টেশন রেডিও টুডে-৮৯.৬ -এর ‌সম্প্রচার সাংবাদিক আবিদ আজম জানান, প্রতিনিয়ত পেশাগত চর্চা, জানা ও শেখার আগ্রহের মাধ্যমে একজন সাংবাদিক মূলতঃ নিজেকে প্রাজ্ঞ করে তুলতে পারেন। তরুণ সংবাদকর্মী হিসেবে এ সম্মাননা আমার নিজেকে আরো যোগ্য করে তুলতে প্রাণীত করবে। আমাকে মনোনীত করার জন্য বিবিএফ জুরি বোর্ডকে কৃতজ্ঞতা জানিয়ে ছোট করতে চাই না। গণমানুষের কল্যাণে নিজেকে নিবেদন করে সবসময় মহৎ সাংবাদিকতার মাধ্যমে দেশ গঠনে ভূমিকা পালনেরও প্রত্যয় ব্যক্ত করেন, আবিদ আজম।

মতামত