,

ব্রেকিং

আমি যেভাবে আমার বউকে ট্রিট করব…

★ জীবনে যেভাবে ইচ্ছা সেভাবে চলার পূর্ণ স্বাধীনতা তার থাকবে। কেবল সেই স্বাধীনতা যেন সমাজ রাষ্ট্র ও ধর্মের বিরুদ্ধাচার ও মানবতার জন্য ক্ষতির কারণ না হয় সেই বিষয়ে তাকেই লক্ষ্য রাখাতে হবে।

★ যতদুর ইচ্ছা উচ্চ শিক্ষাগ্রহণ করবে। এবং সেই শিক্ষাকে সমাজ রাষ্ট্র ও মানবতার কল্যাণে লাগানোর সকল সম্ভাব্য পদ্ধতিতে অংশগ্রহণের সকল ইচ্ছাকে স্বাগতম জানানো হবে আমার পক্ষ থেকে।

★ পৃথিবীর যে কোন প্রান্তে যে কোন সময়ে খুব স্বল্প নোটিসে আমার সংগে বেরিয়ে যাওয়ার মানসিক প্রস্তুতি রাখতে হবে, যেমনটা তার ইচ্ছায় বেরিয়ে পরার প্রস্তুতিও আমার থাকবে।

★ শপিং এর পুর্ন স্বাধীনতা তার রয়েছে এবং সেই সাথে নীড ও ওয়ান্টের পার্থক্য এবং সামর্থ্য ও চাওয়ার মধ্যে চমৎকার ব্যালেন্স করতে নিজের বিবেচনা শক্তি কাজে লাগাবে।

★ সমাজ ও রাষ্ট্রগঠনের সকল প্রক্রিয়ায় যথেষ্ট সক্রিয় উপস্থিতির প্রয়োজনে সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকারের প্রচেষ্টায় আগ্রহী করে তুলতে সবসময় অনুপ্রেরণা দেয়া হবে।

★ সন্তান কেবল স্ত্রীর একার নয়, আর তাই লালনপালনে আমার অংশগ্রহণ তাকে নানাবিধ মানসিক চাপ ও শারীরিক ক্লান্তি থেকে তাকে মুক্তি দেয়াটাও আমার একান্ত কর্তব্য বলেই আমি মনে করি।

★ পুরো জীবনটা একসাথে সুন্দর ভাবে কাটাতে স্বপ্নীল নয় বরং বাস্তবতার আলোকে সংসার ও জীবন পরিচালনায় একে অপরকে সহযোগীতা করা এবং একে অপরের মাঝে ইগোর দেয়ালকে ভেংগে দিয়ে ক্ষমা চাওয়ার অভ্যাস জারি রেখে সম্পর্ককে প্রতিনিয়ত আপডেট রাখার প্রক্রিয়া অব্যাহত রাখা।

★ আমার আগে সে মারা গেলে কিংবা তার আগে আমি মারা গেলে আবার সংসার ও জীবন শুরু করার সকল প্রচেষ্টা চালিয়ে যাওয়ার পূর্ণ অধিকার আমাদের থাকবে।

মানুষের জীবন নিয়ে হাজারটা পরিকল্পনা থাকে, হয়ত এসব পূরণের আগেই আমি বিদায় নেব, হয়ত থাকব। কিন্তু একজনকে ন শিক্ষিত ও আত্মসম্মানবোধ সম্পন্ন নারীকে কিভাবে ট্রিট করা উচিত সেই রূপরেখায় নিজেকেই মডেল বানানো ছাড়া তৃপ্তি নেই।

লেখক: হাসান আল বান্না, ফিল্ম ডিরেক্টর ও বক্তা

মতামত