,

আখেরি মুনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হলো ইজতেমা

গাজীপুরের টঙ্গির তুরাগ তীরে কাকরাইল মারকাজের তত্ত্বাবধানে চলা ৫৪তম বিশ্ব ইজতেমার মুনাজাতের মাধ্যমে শেষ হলো বিশ্ব ইজতেমা।

মুনাজাত পরিচালনা করেছেন কাকরাইল মারকাজের শীর্ষ শুরা সদস্য হাফেজ মাওলানা মুহাম্মাদ জোবায়ের ।

এদিকে সকাল ৮ টার দিকে শুরু হয় বিশেষ হেদায়েতি বয়ান। মাওলানা খুরশিদ আলমের বয়ান শেষে হেদায়েতি বয়ান করছে মাওলানা ইবরাহিম দেওলা। অনুবাদ করছেন হাফেজ মাওলানা জুবায়ের আহমদ।

ভারতের তাবলিগ জামাতের শীর্ষ মুরব্বি মাওলানা ইবরাহিম দেওলা মুনাজাতের আগে হেদায়েতি বয়ানে মুনাজাতেরগুরুত্ব ও মাহাত্ব বিষয়ে আলোচনা করছেন। এরপর দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

মাওলানা ইবরাহিম দেওলা বলেন, সমস্ত নবীকে আল্লাহ দাওয়াতের কাজ দিয়েছেন এবং দুআর এনাম দিয়েছেন। সমস্ত নবী দুআর পুরস্কার পেয়েছেন। হজরত আদম আ. ভুল করেছেন কিন্তু দুআর বিনিময়ে মাফ পেয়েছেন।

এদিকে ঢাকাসহ পার্শ্ববর্তী জেলার ধর্মপ্রাণ মানুষ ইজতেমার বিশেষ এ মুনাজাতে অংশ নিতে সকাল থেকেই ইজতেমার দিকে এসেছেন। ইজতেমার ময়দান ও আশপাশ আগে থেকেই কানায় কানায় পূর্ণ হওয়ায় বাড়তি লোকজনকে অবস্থান করতে হচ্ছিল রাস্তায় ও আশপাশের অলিগলিতে।

এবারের ইজতেমায় অনেক বিদেশে শীর্ষ আলেম মুরব্বি অংশ নিয়েছেন। ভারতের তাবলিগের শীর্ষ মুরব্বি মাওলানা আহমদ লাট, মাওলানা ইবরাহিম দেওলা ও মাওলানা জুহাইরুল ইসলাম অংশ নেন।

বাংলাদেশের শীর্ষ সব উলামায়ে কেরামও এবার ইজতেমায় অংশ নিয়েছেন। গতকাল ইজতেমায় জুমা আদায় করেছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফী।

মতামত