,

বইমেলায় মাহজুবা দীপার কাব্যগ্রন্থ ‘জলের আয়নায় কার ছায়া’

নাগরিক নিউজ: জলই জীবনের প্রতিবিম্ব। আর আয়না মন। এই আয়নায় কত মুখ ভাসে। কেউ কাছের, কেউ দূরের। কেউ চেনা কেউ অচেনা। হুট্ করে দীঘিজলে ভেসে ওঠা ছায়া’ সূর্যের আলোয় টলমল করে। এপার থেকে হাসলে ‘ছায়া’ টাও ওপারে হাসে, কথা বলে। দীঘির জলে কথা বলতে থাকা সেই ছায়া চাইলেই অজলা ভর্তি করে ঘরে তুলে আনা যায় না !
নিভৃতে টুপ্ করে কোনো শুকনো পাতা দীঘির জলে পড়তেই ছায়া টা মৃদু তরঙ্গে ভেসে যায়, কখনোবা হারিয়েও যায়।

লেখক পরিচিতি: জন্ম ১৯৯০ সালে ঢাকা জেলার কেরানীগঞ্জ এ। জন্ম ও বেড়ে উঠা দুটোই গ্রামে।সাহিত্যের প্রতি অনুরাগের কারণে পড়াশুনায় বেছে নেন সাহিত্যকেই। ছিলেন লালমাটিয়া মহিলা কলেজের ইংরেজি সাহিত্য বিভাগের ছাত্রী। শিক্ষা জীবনের মাঝামাঝিতে পাড়ি জমান প্রবাসে। সুদূর অস্ট্রেলিয়ায়। কর্মরত আছেন একটা বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে।
কর্মজীবনের পাশাপাশি অবসর সময় কাটে ছবি এঁকে, লিখালিখি করে।
সংসার জীবন ও কর্মজীবনের পাশাপাশি যে বিষয়টি তাড়িয়ে বেড়ায় সেটি হলো আত্মিক জীবন। সেই আত্মিক তাড়না থেকে মুক্তির জন্যই কবিতা লিখার চর্চা।

‘যদিওবা সে ছায়া ভেসে উঠে তা ছুঁয়ে দেয়া হয় না। ছুঁয়ে দেয়া যায় না। সে ছায়া পাওয়া না পাওয়ার দ্বন্দে তখন আমরা ঘোরের মধ্যে থাকি।
ঘোরের মধ্যে ভাবতে থাকি ‘জলের আয়নায় কার ছায়া’! এভাবে প্রকাশিত হয়েছে কাব্যগ্রন্থ। প্রতিটি কবিতা মা, মাটি ও প্রেম জড়িত।

বই: জলের আয়নায় কার ছায়া
লেখক: মাহ্জুবা দীপা
প্রকাশক: সাহিত্যেদেশ
প্রচ্ছদ: নিশি কাব্য
স্টল নম্বর: ৫৩৪

মতামত