,

গ্রন্থমেলায় আমিনুল ইসলাম হুসাইনী’র ছড়াগ্রন্থ ‘একদিন আমরা মানুষ ছিলাম’

নাগরিক নিউজ : ছড়ার ইতিহাস, স্বরবৃত্তের সৌর্ন্দয হৃদয়ঙ্গম না করেই অনেকে ঢুকে পড়েন ছড়ার রাজ্যে। কেউবা সময়ের দাবীকে অগ্রাহ্য করে, অচল শব্দবন্ধে নিজেকে নিমগ্ন রেখে বাড়িয়ে চলেছে প্রকাশনার সংখ্যা। অথচ ছড়া হওয়া চাই শিশুতোষ ভাবনা-বিস্ময়-কল্পনার প্রাণপ্রাচুর্যে ভরপুর। দেশজ ইতিহাস-ঐতিহ্যের মিশেল, বিজ্ঞানমনস্কতা, কল্পনাকে ধারণ একইসাথে সমাজবাস্তবতা ও বিবর্তনের শাব্দিক খতিয়ান।

অন্ত্যমিলের অন্তঃসারশূণ্য ছড়াশরীর নয়, নয় শব্দমেদে চর্বিতচর্বন। বিপুল প্রাণ-উদ্দীপনায় আশাজাগানিয়া তরুণ ছড়াকারদের একজন আমিনুল ইসলাম হুসাইনী। প্রবন্ধ-নিবন্ধে সক্রিয় এ তরুণ শব্দশিল্পী চর্চার প্রারম্ভ থেকেই ছড়ায় নিবিষ্ট। বিভিন্ন মাধ্যমে প্রকাশিত তার ছড়াগুলো পাঠে পাঠকমাত্রই ধরতে পারেন হুসাইনীর স্বতঃস্ফূর্ততা, ছন্দের দখল আর ভাবনার বহুবর্ণ বিভা। তিনি লিখছেন ধর্ম, মানুষ, মন, প্রেম, ভালোবাসা, প্রকৃতি, সমাজ, দেশ, মুক্তিযুদ্ধ আর সমাজে প্রচলিত অসংখ্য অসঙ্গতি নিয়ে।

সময়কে ধরা কিছু ছড়ার চুম্বকঅংশ আওড়ানো যাক তবে- ‘বৃটিশ থেকে ভারত শ্বাধীন তার পরে দুই পাকিস্তান/

কিন্তু তবু রয়ে গেল বুকের মাঝে মাটির টান/

স্বপ্ন ভাঙে খুনে রাঙে পাক হায়েনার কালো হাত/

স্বাধীনতায় কামড় বসায় বনশুয়োরের হিংস্র দাঁত।’

‘আমরা এখন জ্ঞানীগুণী/

সৃষ্টি করি নব্য/

খুন করেছি পেটের শিশু/

আমরা এখন সভ্য।’ ‘ঢেঁকি এখন জাদুঘরে/ রোদন করে রোজ/ প্রযুক্তির এই জোয়ার নদে/ কে রাখে তার খোঁজ?’ ‘লাত্থি মারি তোর কপালে/ তোদের মতো আমলাদের/ তোরা যারা রক্ত চুষস/ সহস-সরল কামলাদের।’ ‘চালে ভেজাল ডালে ভেজাল/ ভেজালটা নাই কী সে?/ ভেজাল আছে ঔষুধেও/ ভেজাল মরার বিষে।’ এভাবে পাঠক ক্রমশ ঢুকে যায় হুসাইনীর ছড়াজগতে আর মনখোশের তৃপ্তি নিয়ে পরিভ্রমণ সারে ভেতরগত সৌরভে।

আমিনুল ইসলাম হুসাইনী’র অনন্য প্রতিভার স্বাক্ষর ফোটে উঠে তার প্রথম গল্পগ্রন্থ ‘জীবন নদীর বাঁকে’ প্রকাশের মাধ্যমে। মাত্র অষ্টম শ্রেণীতে পড়ুয়া ছেলেটির বুদ্ধিবৃত্তিক উদ্ভবনী এবং অসম্ভব প্রতিভা পাঠক মহলকে তখন দারুণ বিস্মিত করে।

উদিয়মান এই গল্পকার ‘মাসিক আদর্শনারী’ থেকে ‘সবুজ কুঁড়ি সম্মাননা ২০১২’ এবং ‘একুশে বইমেলা-২০১৮’ এ ‘জিলাপি’ (কিশোর গল্পগ্রন্থ) ও ‘চাঁদ উঠেছে মরুর বুকে’ (শিশুতোষ ছড়াগ্রন্থ) লিখে ‘ক্যারিয়ার সম্মাননা ২০১৮’ অর্জন করেন।

তিনি লিখছেন মানুষের জন্য। সুন্দর পৃথিবীর জন্য।অসভ্যতার প্রহেলিকাচ্ছন্নতাকে আস্তাকুঁড়ে নিক্ষেপ করে, কলমে তুলেন মহাসত্যের গান।

বইটি প্রকাশ করেছে দাঁড়িকমা প্রকাশনী। প্রচ্ছদ এঁকেছেন সাজিদুল ইসলাম সাজিদ।
গায়ের মূল্য ১৩৫ টাকা। বইমেলা স্টল নং ২৩৪। ২৫ পার্সেন্ট ছাড়ে বইমেলা ছাড়াও বইটি পাওয়া যাচ্ছে রকমারি ডটকম, ইত্যাদি, কিতাবঘর ডটকম, কতকিছু ডটকম এ।

স্বপ্নবাজ এই শব্দশিল্পীর কলমে আজীবন অব্যাহত থাকুক মানবতার এই জয়োগান।

মতামত