,

প্রফেসর হিসেবে পদোন্নতি পেলেন ড. আবদুল্লাহিল মামুন

আবু ওবাইদা আরাফাত, নাগরিক নিউজ: আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রামের এমবিএ ও এমবিএম প্রোগ্রামের কো-অর্ডিনেটর রাঙ্গুনীয়ার কৃতিসন্তান ড. আবদুল্লাহিল মামুন প্রফেসর হিসেবে পদোন্নতি লাভ করেছেন।

গত ৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ ইং বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৪৩ তম সিন্ডিকেট সভায় তিনি এই পদোন্নতি লাভ করেন।

ড. আবদুল্লাহিল মামুন ছাত্রজীবন থেকেই একজন তুখোড় মেধাবী। তিনি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্থনীতিতে সম্মান ও স্নাতকে ফ্যাকাল্টি ফার্স্ট হওয়ার গৌরব অর্জন করেন। স্বীকৃতিস্বরূপ উভয়স্তরে বিশ্ববিদ্যালয় মেধা বৃত্তি ও কিউয়েসা মেধা বৃত্তি অর্জন করেন। ২০১৪ সালে তুরস্কের জাতীয় সংস্থা The Scientific and Technological Research Institution of Turkey (TUBITAK) (তুরস্কের বৈজ্ঞানিক ও প্রযুক্তিগত গবেষণা প্রতিষ্ঠান) এ রিসার্চ ফেলো হিসেবে যোগ দেন এবং ২০১৯ সালে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন। ২০২০ শিক্ষাবর্ষে তুরস্ক সরকারের Presidency for Turks Abroad and Related Communities (YTB) এর পোস্ট ডক্টোরাল ফেলোশিপ নিয়ে তুরস্কের চোকোরোভা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভিজিটিং রেসার্চ স্কলার হিসেবে যোগ দেন এবং ২০২১ সালে পোস্ট ডক্টোরাল রিসার্চ সম্পন্ন করেন।

স্বনামধন্য জাতীয় ও আন্তর্জাতিক জার্নালে ড. মামুনের  (Indexed in ISI, SCOPUS and ranked by ABDC, ABS) ৪০ টিরও বেশি গবেষণা প্রবন্ধ রয়েছে। মালয়েশিয়া, তুরস্ক, কিরগিজস্থান ও সাইপ্রাসের বিভিন্ন কনফারেন্সে ১২ টিরও অধিক নিবন্ধ উপস্থাপন করেন যার ১টি বেস্ট পেপার হিসেবে মনোনীত হয়।

ড. আবদুল্লাহিল মামুন ২০০৬ সালে আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রামে যোগদান করেন। ২০১০ সালে সহকারী অধ্যাপক ও ২০১৫ সালে সহযোগী অধ্যাপক হিসেবে পদোন্নতি লাভ করেন। তিনি বর্তমানে উক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের এমবিএ ও এমবিএম প্রোগ্রামের কোওর্ডিনেটরসহ বিভাগ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

ড. আবদুল্লাহিল মামুনের জন্ম রাঙ্গুনীয়া উপজেলার বেতাগী গ্রামে। তিনি রোটারি বেতাগী ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি ও চট্টগ্রামের হাজী মুহাম্মদ মহসিন কলেজ থেকে কৃতিত্বের সাথে এইচএসসি পাশ করেন। ড. আবদুল্লাহিল মামুন পিতা আবু মোহাম্মদ আবদুল্লাহ ও মাতা জাহানারা বেগমের সুযোগ্য সন্তান।

মতামত