,

দরিদ্র শিক্ষার্থীদের পড়াশুনার দায়িত্ব নিলেন ডা. বিজয় দত্ত

ঢাকা জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটের কার্ডিওলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও বাংলাদেশ কার্ডিয়াক সোসাইটির সাংগঠনিক সম্পাদক বাঁশখালীর কৃতি সন্তান ডা: বিজয় দত্ত তাঁর অকাল প্রয়াত দিদির নামে ‘সুমিত্রা দত্ত ফাউন্ডেশন’ ও মাতা-পিতার নামে ‘মঞ্জু দত্ত-সাধন দত্ত ফাউন্ডেশন’ হতে বাঁশখালীর কালীপুর ইউনিয়নের দুটি বিদ্যালয়ের দরিদ্র মেধাবী ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে বৃত্তি প্রদান করেছেন।

‘সুমিত্রা দত্ত ফাউন্ডেশন’ হতে কালীপুর নাসেরা খাতুন রাজকুমারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের একজন দরিদ্র মেধাবী ছাত্রীকে সারাবছরের স্কুলের বেতন, একবছরের গৃহশিক্ষকের বেতন এবং কাগজ কলমের খরচ দেয়া হয়। ইতিপুর্বে কালীপুর এজহারুল হক উচ্চ বিদ্যালয়ে ‘মঞ্জু দত্ত-সাধন দত্ত ফাউন্ডেশন’ হতে দুই বছর ধরে একই প্রক্রিয়ায় একজন ছাত্র বৃত্তি পেয়ে আসছে। এছাড়াও আগামী বছর থেকে প্রতিবছর এসএসসি পরীক্ষার ফর্ম পুরণের সময় ১০ জন অতীব দরিদ্র ছাত্রী এবং ১০ জন ছাত্র মোট ২০ ছাত্রছাত্রীকে সরকার নির্ধারিত ফর্ম পুরণের ফি প্রদান করা হবে।

এব্যাপারে দুই স্কুলের শিক্ষকমন্ডলীর সাথে আলাপ- আলোচনা করে একটি পরিকল্পনা প্রণয়ন করা হয়ছে এই সময় দুইজন শিক্ষার্থীকে বাৎসরিক অনুদান দেয়া হয়।

উক্ত বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে কালীপুর স্কুলের প্রাক্তন কৃতি ছাত্র ডাঃ বিজয় দত্তসহ আরো উপস্থিত ছিলেন কালীপুর এজহারুল হক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বাবু চন্দন কান্তি দত্ত, নাসেরা খাতুন রাজকুমারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দুলাল হোসেন, কাজী হারুনুর রশিদ, বিকাশ ধর, মিসেস ঝর্ণা, সুব্রত, আবুল বশর, প্রমুখ।

বৃত্তি প্রদান শেষে দুই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানগণ ডাঃ বিজয় দত্তকে দরিদ্র ছাত্রছাত্রীদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য ধন্যবাদ জানান এবং সকল সচ্ছল ব্যক্তিদেরকে অসচ্ছল ছাত্রছাত্রীদের প্রতি সহযোগিতার হাত বাড়ানোর আহ্বান জানান।
প্রেস বিজ্ঞপ্তি

মতামত