,

বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হাফেজ ত্বকীকে বিমানবন্দরে গণ সংবর্ধনা

 


নাগরিক ডেস্ক: পৃথিবীর ৬২ দেশের প্রতিযোগীদের পেছনে ফেলে প্রথম প্রথম স্থান অধিকার করে বাংলাদেশকে বিশ্ব দরবারে উজ্জ্বল করে দেশে ফেরার পর হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ফুলেল সংবর্ধনায় সিক্ত হন বাংলাদেশের গর্ব হাফেজ সাইফুর রহমান ত্বকী।

আজ শনিবার সকালে হাফেজ সাইফুর রহমানকে বহনকারী বিমান হজরত শাহজালাল রহ. আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করলে ত্বকীর উস্তাদ রাজধানীর মারকাজুত তাফফিজ মাদরাসার পরিচালক হাফেজ নেছার আহমদ আন নাছিরী, বিশ্বজয়ী আরেক হাফেজ তরিকুলসহ মাদরাসার ছাত্র-শিক্ষক ও সাধারণ কুরআনপ্রেমী মানুষ তাকে সংবর্ধনা জানান।

জর্ডানের রাজধানী আম্মানে ১৫ জুন থেকে২০ জুন অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক কোরআন প্রতিযোগিতায় পৃথিবীর ৬২ দেশের প্রতিযোগীদের পেছনে ফেলে প্রথম হন সাইফুর রহমান ত্বকী।

প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করে বৃহস্পতিবার চূড়ান্তপর্বের জন্য নির্বাচিত হন ত্বকি। শুক্রবার প্রথম স্থান অর্জনকারী হিসেবে নাম ঘোষণা হওয়ার পর জর্ডানের বাদশাহ তাকে পুরস্কৃত করেন। প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় স্থান অর্জন করে কাতারের প্রতিযোগী, তৃতীয় স্থান বাহরাইন, চতুর্থ পাকিস্তান ও পঞ্চম স্থান অর্জন করে সৌদি আরবের প্রতিযোগী।

সাইফুর রহমান ত্বকীর বাবা মাওলানা বদিউল আলম ধলপুর লিচুবাগান নাদিয়াতুল কোরআন হাফিজিয়া নূরানী মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা প্রিন্সিপাল এবং রামপুরার বায়তুল আমান জামে মসজিদের খতিব। সে রাজধানীর মারকাজুত তাহফিজের ছাত্র।

সাইফুর রহমান ত্বকী ২০১৪ সালে এনটিভি আয়োজিত পিএইচপি কোরআনের আলো প্রতিভার সন্ধানে প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অধিকার করেছিলেন। এ ছাড়াও ২০১৫ সালে জেদ্দায় আন্তর্জাতিক হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান, ২০১৬ সালে বাহরাইনে তৃতীয় স্থান ও ২০১৭ সালে কুয়েত আন্তর্জাতিক হিফজুল কোরআন তেলাওয়াত প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করে দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেন তিনি।

মতামত