,

ইসলামের বিরুদ্ধে সকল ষড়যন্ত্র বন্ধ করুন: বাঁশখালীতে ইসলামী আন্দোলনের ইফতার মাহফিলে বক্তারা

মিজান বিন তাহের, নাগরিক নিউজঃ চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলা শাখা ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের উদ্যোগে রমযানের তাৎপর্য শীর্ষক আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল সোমবার ১৪ ই রমজান (২০ মে) সন্ধ্যায় পৌরসদরের জলদী মিয়ারবাজারের কুটুমবাড়ী রেস্তোরায় ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ চট্টগ্রাম দক্ষিন জেলা সেক্রেটারী মাওলানা জসিম উদ্দীনের সঞ্চালনায় ও চট্টগ্রাম দক্ষিন জেলা সভাপতি সাংবাদিক মাওলানা শফকত হোসাইন চাটগামীর সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় শিল্প ও বানিজ্য বিষয়ক সম্পাদক আলহাজ্ব মুহাম্মদ জান্নাতুল ইসলাম।

এতে বিশেষ অতিথি উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন,দক্ষিন জেলা উপদেষ্টা আল্লামা হাফেজ ফরিদ আহমদ আনছারী,
কক্সবাজার ইন্টানেশনাল ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক
আল্লামা ড.বেলাল নুর আজিজী,
চট্টগ্রাম দারুল মা’রিফ মাদ্রাসার সিনিয়র মুহাদ্দিস মাওঃ মুজিবুর রহমান,দক্ষিন জেলা সহ সভাপতি মাওঃ নুরুল আলম,বাঁশখালী প্রেস ক্লাবের সভাপতি অনুপম কুমার দে অভি,সিনিয়র সহ সভাপতি কল্যান বড়ুয়া মুক্তা,দৈনিক কালের কন্ঠ ও সুপ্রভাত বাংলাদেশের বাঁশখালী প্রতিনিধি উজ্জল বিশ্বাস,ইত্তেফাক প্রতিনিধি শাহ মুহাম্মদ শফি উল্লাহ,দৈনিক জনকন্ঠ প্রতিনিধি জোবাইর চৌধুরী,দৈনিক সংগ্রাম প্রতিনিধি আব্দুল জাব্বার,দৈনিক আলোকিত বাংলাদেশ ও মানবকন্ঠ প্রতিনিধি মুহাম্মদ মিজান বিন তাহের,দৈনিক সংবাদ প্রতিনিধি সৈকত আচার্য্য,মুফতি নুরুল আমিন,মাওঃ আতাউল্লাহ ইসলামাবাদী,মাওঃ নুরুল আলম,মাওঃ ওসমান গনী,মাওঃ মোবারক হোসাইন আসিফ প্রমুখ।
উক্ত ইফতার মাহফিল ও আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন,
আমাদের দেশের সেকুলার রাজনীতিবিদরা ধর্মে রাজনীতি নেই বা ইসলামে রাজনীতি নেই, বিজাতীয়দের শিখানো এসকল বুলির পক্ষে হাতে গোনা কয়েকজন নাস্তিক দাড় করিয়ে উক্ত অবাস্তব কথা বাস্তবায়ন করতে চায়। এ সকল ইসলাম বিরোধী শক্তির দ্বারা দেশ বার বার পরিচালিত হওয়ার কারনেই দেশের আইন-শৃংখলার চরম অবনতি হয়েছে, অর্থনীতি পঙ্গুপ্রায়, বেকারত্ত্বের সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলছে, বাড়ছে খুন-গুম, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজী, টেন্ডারবাজী, ইভটিজিং, ধর্ষণ ও দখলের প্রতিযগীতা বাড়ছে।
দেশকে এসকল দুরবস্থা থেকে মুক্তি দিয়ে সকলস্তরে শান্তি ফিরিয়ে আনতে পারে একমাত্র ইসলাম। দেশে আলেম ওলামাদের নেতৃত্বে ইসলামী হুকুমত প্রতিষ্ঠিত হলে হাজার হাজার কোটি টাকা নয় এক টাকাও কেউ চুরি করবেনা। শত শত মানুষ নয় একজন মানুষের জীবনও যাবেনা। ইভটিজিং, ধর্ষণ ও খুন-গুম হবেনা। অর্থনীতিতে দেশ স্বয়ং-সম্পন্ন হবে। সকল সেক্টরে শান্তি প্রতিষ্টিত হবে। তাই আসুন আগামীতে আওয়ামীলীগ-বিএনপি নয়, গণতন্ত্র, পুজিঁবাদ ও ধর্মনিরপেক্ষতাবাদ নয়, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর পক্ষে ঐক্যবদ্ধ হয়ে ইসলামকে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় বসাতে হবে।
দেশের জনগণ আজ তিন ভাগে বিভক্ত একাভাগ আওয়ামী বা ১৪ দলীয় শক্তি আর একভাগ বিএনপি-জামাত বা ১৮ দলীয় শক্তি এদের অপশাসনের যাতাকলে পিষ্ট হয়ে মানুষ দিশেহারা হয়ে এখন তৃতীয় শক্তি হিসেবে ইসলামী শক্তি তথা পীর সাহেব চরমোনাইর নেতৃত্ত্বাধীন ইসলামী আন্দোলনের পক্ষে গণজোয়ার শুরু হয়েছে, আগামীতে কোন তন্ত্র-মন্ত্র নয় ইসলামী শক্তিকে দেশের মানুষ ক্ষমতায় দেখতে চায়। রমজান কুরআন নাযিলের মাস, আসুন আমরা এ মাসেই শপথ করি আগামীতে সরকার হবে কুরআনী সরকার, আগামী সরকার হবে ইসলামী সরকার।

এ সময় বক্তারা আরো বলেন,রমজান মাস আখেরাতের পুণ্য অর্জনের মাস। মহান রবের পক্ষ থেকে মুমিনদের জন্য রহমত মাগফিরাত ও নাজাতের মাস। তাই মাহে রমজানের পবিত্র রক্ষা করতে হবে, এবং যারা ইসলাম ও কুরআনের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে তাদের বিরুদ্ধে ইসলামী আন্দোলন ও তৌহিদি জনতা রুখে দাড়াবে।

মতামত