,

ব্রেকিং

এশিয়া কাপে টাইগারদের চুড়ান্ত একাদশ

আর মাত্র পনের দিন পরেই এশিয়াকাপের মিশন। মাশরাফি বিন মুর্তজার নেতৃত্বে এবার এশিয়া কাপে খেলবে বাংলাদেশ দল। এ জন্য ১৫ সদস্যের চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। সময়ের পরিবর্তনে দলে পরিবর্তন থাকছেই। দল ঘোষণায় নতুনত্ব থাকছেই। বাংলাদেশ দলে রয়েছেন- মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), সাকিব আল হাসান (সহ অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, মোহাম্মদ মিথুন, লিটন দাস, মুশফিকুর রহিম, আরিফুল হক, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মোসাদ্দেক হোসেন, নাজমুল হোসেন শান্ত, মেহেদী হাসান মিরাজ, নাজমুল ইসলাম অপু, রুবেল হোসেন, মুস্তাফিজুর রহমান ও আবু হায়দার রনি। দলে নির্ভরযোগ্য কয়েকজন ক্রিকেটার রয়েছেন। একদমই ভরসা করা যায় না এমন ক্রিকেটারও রয়েছেন। সে তালিকায় এগিয়ে থাকা মোসাদ্দেকও রয়েছেন টিমে। এ আন্তর্জাতিক লড়াইয়ে অনভিজ্ঞরাই বেশি রয়েছেন টিমে। ঘরোয়া আসরে তারা ভালো খেললেও আন্তর্জাতিক আসরে এর আগে কয়েকটি ম্যাচে মাঠে নেমে তেমন তাল লয় মিলাতে পারেননি। শান্ত ঘরোয়া আসরে লড়াকু, আরিফুলও তাই। কিন্তু বড় আসরে তারা কতটা পারবেন? এশিয়াকাপে এর আগে দুইবার ফাইনাল খেলে বাংলাদেশ দল।

শিরোপা ঘরে তুলতে গিয়েও একেবারে কাছাকাছি গিয়ে ভাগ্য রেশে থেমে যেতে হয়। সে জন্য এবার কিন্তু বাংলাদেশের মানুষের অনেক বড় স্বপ্ন এবারের এই আসর নিয়ে। কিন্তু সে আশা কতটা পূরণ হবে? এশিয়াকাপে কতটা শক্তিশালী এই টাইগার টিম? এ জন্য নিশ্চয়ই সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের কাছ থেকে সেরা পারফর্ম প্রত্যাশা করবে ভক্তরা। স্কোয়াড দেখেই বাংলাদেশ দলের সেরা একাদশে কে কে থাকবে তা সহজে অনুমান করা যায়, দলে অবধারিত ভাবে থাকবে পাঁচ সিনিয়র খেলোয়াড় মাশরাফি, সাকিব, তামিম মুশফিক, রিয়াদ। বাকি থাকে আর ৬ জন এর মধ্যে বোলিং বিভাগে মোটামুটি নিশ্চিত মুস্তাফিজ এবং রুবেল। রুবেল খারাপ করলে সুযোগ পেতে পারে আবু হায়দার রনি। অন্যদিকে ওপেনিং – এ তামিমের সাথে থাকবে লিটন। যেহেতু সদ্য শেষ হওয়া সিরিজে দারুণ ফর্মে ছিলেন লিটন, লিটন ভাল না করলে তখন সুযোগ পাবে মিথুন। স্পিন বিভাগে সাকিবের সঙ্গী হবেন মিরাজ এছাড়া মোসাদ্দেকর বোলিংয়েও অধিনায়কের ভরসা আছে। অল রাউন্ডার হিসেবে সুযোগ পাবে আরিফুল ইসলাম। যদি অতিরিক্ত ব্যাটসম্যান খেলানোর চিন্তা থাকে তাহলে একাদশে সুযোগ পেতে পারে নাজমুল হাসান শান্ত। আর নাজমুল অপুকে নেওয়া হয়েছে সাকিবের ব্যাকআপ হিসেবে। তবে পিচ বেশী স্পিনিং ফ্রেন্ডলি হলে সুযোগ পাবেন অপু।

বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশঃ
তামিম ইকবাল, লিটন দাস, সাকিব আল হাসান (সহ অধিনায়ক), মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আরিফুল হক, মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), মোসাদ্দেক হোসেন, মেহেদী হাসান মিরাজ, রুবেল হোসেন, মুস্তাফিজুর রহমান।

মতামত