,

১১০তম জব্বারের বলীখেলা আজ

লালদীঘির ময়দানে তিন দিনব্যাপী বৈশাখী মেলা শুরু হয়েছে বুধবার। বৃহস্পতিবার কৌশল আর পেশি শক্তির কুস্তিতে মেতে উঠবে বলীরা। সাধারণ ও চ্যালেঞ্জিং বাউটে অংশ নেবে শতাধিক বলী। নির্ধারণ হবে এবারের চ্যাম্পিয়ন ও রানারআপ।

মোবাইল অপারেটর গ্রামীণ ফোনের অর্থায়নে আয়োজিত আব্দুল জব্বারের স্মৃতি কুস্তি প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করবেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার মাহাবুবর রহমান। কুস্তি শেষে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করবেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ও সিটি মেয়র আ জ ম নাসির উদ্দিন। এছাড়াও অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি গ্রামীণ ফোনের চীফ মার্কেটিং এ্যান্ড ডেপুটি চীফ এক্সিকিউটিভ অফিসার ইয়াসির আজমান। বাঙালীর ঐতিহ্য শহুরে সংস্কৃতি থেকে উঠে আসেনি। উঠে এসেছে গ্রাম বাংলার মানুষের সাধারণ হালচাল থেকে। তাই গ্রাম বাংলা থেকেই বৈশাখী মেলার আয়োজন শুরু।

পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে অজপাড়াগাঁয়ে যেমন মেলার আয়োজন করা হয় সেই মেলা চট্টগ্রামে ২৫ এপ্রিল বা ১২ বৈশাখে জব্বারের বলী খেলা উপলক্ষে জমে উঠে। শততম পার হয়ে আরও নয়টি বছর পেরিয়ে এবারের আয়োজনকে নিয়ে ১১০তম।

চট্টগ্রামে ঐতিহ্যবাহী জব্বারের বলী খেলা আজ। এ খেলাকে ঘিরে চট্টগ্রামে তিন দিনব্যাপী মেলার আয়োজন করা হয়েছে বুধবার থেকে। ঐতিহাসিক লালদীঘি ময়দানের আশপাশ এলাকায় প্রতিবছরের মতো এবারও মেলার আয়োজন করা হয়েছে। গ্রাম-বাংলার অজপাড়াগাঁয়ে তৈরি হস্তশিল্পের বিশাল সমাহার রয়েছে এ মেলায়। আজ সেই কাক্সিক্ষত মেলা প্রাঙ্গণে সেয়ানে সেয়ানে লড়বে বলী খেলায়। অতীতের ইতিহাস অনুযায়ী, আজ বিকেলে লালদীঘি মাঠেই জব্বারের ১১০তম বলী খেলা অনুষ্ঠিত হবে। সেখানে বালি দিয়ে গড়ে তোলা হয়েছে মাটি থেকে প্রায় ৪/৫ ফুট উঁচু মঞ্চ। এতেই লড়বে দেশের বরেণ্য অঞ্চল থেকে ছুটে আসা বলীয়ানরা। সাধারণ বাউট ও চ্যাম্পিয়ন বাউটে ১শ’রও বেশি প্রতিযোগী গত একদশক ধরে লড়ে আসছে।

মতামত