,

পেকুয়ায় বন্দুকযুদ্ধে ২ জলদস্যু নিহত

কক্সবাজারের পেকুয়ায় র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে সন্দেহভাজন দুই জলদস্যু নিহত হয়েছে। তাদের কাছ থেকে দেশে তৈরি ৮টি আগ্নেয়াস্ত্র ও ২৬ রাউন্ড তাজা গুলি উদ্ধার করা হয়।

বন্দুকযুদ্ধে নিহত দুই জলদস্যুকে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি শেষে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে র‌্যাবের পক্ষ থেকে পেকুয়া থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। বুধবার (২৭ মার্চ) ভোর সাড়ে চারটার দিকে সমুদ্র উপকূলীয় এলাকা পেকুয়ার মগনামা ঘাটের বাজারের কাছে এই বন্দুকযুদ্ধের ঘটনাটি ঘটে।

র‌্যাব জানিয়েছে, বন্দুকযুদ্ধে নিহত দুইজনের পরিচয় এখনো পর্যন্ত শনাক্ত করা যায়নি। তারা পেকুয়া বা আশপাশের এলাকার সন্দেহভাজন জলদস্যু হতে পারে। নিহতদের পরিচয় নিশ্চিত হওয়ার জন্য র‌্যাব ও পুলিশ কাজ করছে।

র‌্যাব কক্সবাজার ক্যাম্পের ইনচার্জ মেজর মো: মেহেদী হাসান বলেন, ‘সমুদ্র উপকূলে ডাকাতির প্রস্তুতি নেওয়ার গোপনে খবর পেয়ে র‌্যাব আজ বুধবার ভোরে অভিযানে যায়।র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে গুলি ছুঁড়ে একদল জলদস্যু। র‌্যাবও পাল্টা জবাবে গুলি চালায়। বেশ কিছুক্ষণ ধরে উভয়পক্ষে চলে বন্দুকযুদ্ধ। এসময় ঘটনাস্থলে সন্দেহভাজন দুই জলদস্যু নিহত হয় এবং বাকীরা পালিয়ে যায়। এসময় ঘটনাস্থল থেকে ৪টি ওয়ান শুটার গান, এসবিবিএল ১টি, ডিবিবিএল ৩টি ২৬ রাউন্ড তাজা গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।

র‌্যাব কর্মকর্তা জানান, এ ব্যাপারে পেকুয়া থানায় পৃথক তিনটি মামলা করার প্রস্তুতি চলছে। নিহত দুইজনের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি শেষে ময়ানতদন্তের জন্য লাশ কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।’

মতামত