,

নিউজিল্যান্ডে নিহত পরিবারকে তুলে দেবেন তহবিলের সব টাকা সেই ডিম-বালক!

এই তহবিলের পুরো অর্থ মসজিদে নিহত মুসল্লিদের দান করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এই বীর তরুন। মুসলিমরা কখনো জংগী হয় না বরং শেতাঙ্গরাই বড় সন্ত্রাসী এমন মন্তব্য করে এই কিশো৯র বলেন,নিহত-আহত মুসলিম পরিবারের সাহায্যে সবাই এগিয়ে আসুন। খবর ডেইলি মেইলের

কনোলিকে হামলা ও তাকে নোংরা কথা বলার জন্যে সিনেটর ফ্র্যাসারের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের ও বহিষ্কারের দাবি তুলছে অস্ট্রেলিয়ার জনগণ। অ্যানিংয়ের মাথায় ডিম ফাটানোর ঘটনা সারাবিশ্বে দ্রুত ভাইরাল হয়ে পড়ে। মুহূর্তের মধ্যে সামাজিক মাধ্যমে হিরোর তকমা পায় সেই কিশোর।

সেইসঙ্গে ফ্র্যাসার অ্যানিংয়কে বহিষ্কারের দাবিতে চার্জডটঅর্গের মাধ্যমে অন্তত ৫ লাখ ব্যক্তি আবেদন করেছেন। এছাড়া ফ্র্যাসার অ্যানিংয়ের কঠোর সমালোচনা করছেন দেশটির অনেক রাজনৈতিক নেতা। অ্যানিংয়ের সমালোচনা করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসনও।

হামলায় নিহত হন ৫০ জন। আর এই হামলার দায় মুসলিম অভিবাসীদের উপর চাপিয়ে বিতর্ক উসকে দেন অস্ট্রেলিয়ার সিনেটর ফ্রেজার অ্যানিং। এর প্রতিবাদ জানিয়ে সিনেটরের মাথায় ডিম ভেঙে দেন এক তরুণ।

গত শনিবার মেলবোর্নের মোরাবিনে এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘটনা ঘটে। সিনেটরের ডিম ভাঙার সেই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। এরপর থেকে বিশ্বব্যাপী ব্যাপক প্রশংসায় ভাসছেন ওই কিশোর।

মতামত