,

আন্তর্জাতিক কাস্টমস দিবস আজ

বিশ্ব শুল্ক সংস্থার (ডব্লিওসিও) সদস্যভুক্ত বিশ্বের ১৮৩টি দেশে আজ একযোগে পালিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক কাস্টমস দিবস। বাংলাদেশেও দিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হচ্ছে। এ বছর দিবসটির প্রতিপাদ্য হচ্ছে ‘নিরবচ্ছিন্ন বাণিজ্য, যাতায়াত ও পরিবহন ব্যবস্থার জন্য স্মার্ট সীমান্ত’।

দিবসটি উপলক্ষে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। এর মধ্যে আজ সকালে রাজধানীর সেগুনবাগিচা থেকে বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হবে। সন্ধ্যায় শেরে বাংলা নগরে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এ উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। এতে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালসহ সরকারি বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তা ও ব্যবসায়ী নেতারা উপস্থিত থাকবেন।

এনবিআরের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, কাস্টমস বা শুল্ক ব্যবস্থার আধুনিকায়নে বিভিন্ন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে আমদানি রপ্তানি সহজীকরণের লক্ষ্যে অথরাইজড ইকোনমিক অপারেটর (এইও), ন্যাশনাল সিঙ্গেল উইন্ডো, প্রাক আগমন প্রক্রিয়া, অগ্রিম মূল্য ঘোষণা, অনলাইনে পণ্যের নিলাম প্রক্রিয়া বাস্তবায়ন হয়েছে।

রাজস্ব আহরণের পাশাপাশি প্রতিবেশী দেশ ও অন্যান্য দেশের সীমান্ত সংস্থার মধ্যে আধুনিক ও স্বয়ংক্রিয় ব্যবস্থায় তথ্য আদান-প্রদানের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক বৈধ বাণিজ্যকে নির্বিঘ্ন করতেও কাজ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন এনবিআর চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া।

দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন। রাষ্ট্রপতি তার বাণীতে সহজে ও স্বচ্ছন্দে শুল্ক পরিশোধ করতে হয়রানিমুক্ত শুল্কবান্ধব পরিবেশ সৃষ্টি করার তাগিদ দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী তার বাণীতে শুল্ক ব্যবস্থার আধুনিকায়ন ও ব্যবসাবান্ধব করতে তার সরকারের নেওয়া পদক্ষেপ উল্লেখ করেন।

মতামত